পীরগঞ্জে এক বিধবার ভোগ দখলকৃত সম্পত্তি প্রতিপক্ষগণ নিজেদের দাবী করে রাতের অন্ধকারে তালা কাটার অভিযোগ!

0
222

পীরগঞ্জে এক বিধবার ভোগ দখলকৃত সম্পত্তি প্রতিপক্ষগণ নিজেদের
দাবী করে রাতের অন্ধকারে তালা কাটার অভিযোগ

পীরগঞ্জ (রংপুর)সিনিয়র ষ্টাফ রিপোর্টার সর্দার নজরুল ইসলাম :

রংপুরের পীরগঞ্জে ৩৪ বছর ধরে ভোগ দখলকৃত সম্পত্তি প্রতিপক্ষগণ নিজের দাবী করে এক বিধবার বসতবাড়ীর সামনে দোকান ঘরে রাতের আধারে তালা কাটার ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিয়েছে। জানা গেছে ১২নং মিঠিপুর ইউনিয়নের মাদারগঞ্জ বন্দরে মাছুমা খাতুন @ চায়না নামের এক বিধবা মহিলা ক্রয় সুত্রে পাওয়া সম্পত্তি ভোগ দখল, বসত বাড়ী নির্মাণ করে বসবাস করে আসছে। তফশীলভূক্ত সম্পত্তি চায়নার স্বামী মৃত: আবু জাফর মিয়া গত ইং ২৫/০৯/১৯৮৬ খ্রি: দলিল নং- ১০০৬৪ মুলে একবারপুর পূর্বপাড়া গ্রামের কেসমত উল্লাহ শেখ এর পুত্র আব্দুল জলিল শেখের নিকট থেকে ক্রয় করে বসত বাড়ী ও দোকান ঘর নির্মাণ করে অদ্যবধি ভোগ দখল করছেন। উক্ত তফশীল বর্ণিত সম্পত্তির মধ্য থেকে তার স্বামী গত ইং ০৪/১২/১৯৯৪ খ্রি: দলিল নং- ১১৪৮৯ এবং ইং ০৩/০১/২০০২ খ্রি: দলিল নং- ২৩৮ নং দলিল মুলে সর্বমোট ০৮ (আট) শতাংশ জমি তার স্ত্রীর নামে হস্তান্তর করেন। উল্লেখিত সম্পত্তি থেকে ২৯/১২/২০১৯ খ্রি: ১১৭৭.৬ দলিল মুলে ছেলে আমিনুল ইসলাম বরাবরে ২.৫ (দুই দশমিক পাঁচ) শতাংশ জমি হস্তান্তর করেন। এদিকে গত ০৩/০৯/২০ইং তারিখ রাত্রি আনুমানিক ১২টার সময় দবির শেখ ও আব্দুল জলিল শেখসহ আরও ভাড়াটিয়া বেশ কিছু লোকজন দিয়ে চায়না বেগমের বসতবাড়ীর সামনে দোকানে লাগানো সিসি ক্যামেরার লাইন কেটে দিয়ে দোকানের ঝাপে লাগানো তালা কাটতে থাকে। এক পর্যায়ে শাটার ও তালা কাটার শব্দে তার মেয়ে লিমা খাতুন ঘুম থেকে জেগে ওঠে এবং বীরঙ্গনা বেশে সন্ত্রাসী কায়দায় তালা কাটার দৃশ্য মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় ধারণ করতে থাকে। মোবাইল ফোনের ভিডিও ফুটেজে নীল শার্টে ছোপ ছোপ সাদা প্রিন্ট ও লুঙ্গি পড়া একজন ব্যক্তি ইলেক্ট্রিক কাটার দিয়ে ঝাপের তালা কাটতে দেখা গেছে। চায়নার মেয়ে লিমা ঐ ব্যক্তিকে থামতে বললে সে নিজের মোবাইল ফোনটি মুখে নিয়ে মুখ ফিরিয়ে দাঁড়িয়ে যায়। ফুটেজে সাদা শার্ট পড়া আরও একজন কেও দেখা যায়। এক পর্যায়ে তালা কাটা ওই ব্যক্তির কাছে গভীর রাতে তাদের ঝাপ, তালা ও সিসি ক্যামেরার লাইন কাটার কারণ জানতে চায় চায়নার মেয়ে লিমা খাতুন। উত্তরে ওই ব্যক্তি তার লোকের সাথে (যিনি তাকে পাঠিয়েছেন) লিমাকে তার সাথে কথা বলতে বলেন। এতে ওই ব্যক্তিরা কোন সদুত্তর দিতে না পারলে কিছুণ পর সাদা গেঞ্জি পড়া পাকা দাড়ির এক ব্যক্তি (আব্দুল জলিল) এসে দোকান ঘরের ওই তালা নিজের হিসেবে দাবী করেন। এতে লিমা আপত্তি করে বলে- ‘আপনাদের তালা কেমন করে হয়? আপনার যদি তালা হয় তাহলে তালার চাবী কোথায়? চাবী নিয়ে আসেন’। এতে দাড়ি ওয়ালা ওই ব্যক্তি প্তি হয়ে উল্টা-পাল্টা কথা বলে জুতা পেটা করার হুমকিও দেয় চায়না ও তার পরিবার কে। অপরদিকে আগামীকাল সকালে দেখে নেবে বলে ঘটনাস্থল দ্রæত ত্যাগ করেন। অন্যদিকে ওই বিধবার বাড়ীতে তার মেয়ে ছাড়া অন্য কেউ না থাকায় দবির ও আ: জলিল শেখের নেতৃত্বে উক্ত ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে বলে মোবাইল ভিডিওতে দেখা গেছে। ওইদিন রাতে ৯৯৯ এ ফোন করলে পুলিশ রাত ভোর ঘটনাস্থলে অবস্থান করেন। এ ঘটনায় মাছুমা বেগম @ চায়না বাদী হয়ে পীরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পীরগঞ্জ থানার এসআই মিলন মিয়া গত শুক্রবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তিনি উভয় পক্ষকে কাগজপত্র নিয়ে আসার জন্য বলেছেন।

Print Friendly, PDF & Email